শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:০৪ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ
দেশের সকল জেলা, থানা/উপজেলা/ইউনিয়ন এবং বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে "দি সকাল বিকাল " এ চীফ রিপোর্টার, স্টাফ রিপোর্টার ও প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে আগ্রহী প্রার্থীরা আজি যোগাযোগ করুন drsubratabogra@gmail.com । প্রিয় পাঠক আপনিও “দি সকাল বিকাল” নিউজকে পাঠাতে পারেন আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া অপ্রীতিকর ঘটনার কথা জানাতে পারেন আপনার অভিজ্ঞতা অথবা আপিও হতে পারেন একজন সাংবাদিক । দি সকাল বিকাল এর সাথে থাকার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ আমাদের সাথেই থাকুন
শিরোনামঃ
বিএনপির সিরিজ বৈঠক ষড়যন্ত্রেরই একটি অংশ’ বললেন ওবায়দুল কাদের দেশের বেশিরভাগ এলাকায় কার্যকর হয়নি ইন্টারনেটের ‘এক দেশ এক রেট’ বি.এম.ডব্লু CE 04 : ১৩০ কিমি ড্রাইভিং রেঞ্জ সহ আত্মপ্রকাশ করল এই বৈদ্যুতিক স্কুটার জয়পুরহাটের বিটিভির জেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক মিন্টু সড়ক দুর্ঘটনায় আহত বিটিভি’র জয়পুরহাট জেলা প্রতিনিধি মিন্টু রোড এক্সিডেন্টে আহত জয়পুরহাটের কালাই এ শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম এর অনুমোদন জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে ৫ হাজার মেট্রিক টন এর অত্যাধুনিক সাইলো নির্মান ঢাকায় ডেকে দূরত্ব কমানোর ‘নির্দেশ’ কলকাতায় ভোট পরবর্তী হিংসায় বাংলাদেশি এবং রোহিঙ্গারা জড়িত, মোদীকে নালিশ শুভেন্দুর অধিকারী জয়পুরহাট হিলি মহাসড়ক ২ মাস না হতেই খারাপ অবস্থায়

দেশের বেশিরভাগ এলাকায় কার্যকর হয়নি ইন্টারনেটের ‘এক দেশ এক রেট’

রিপোর্টারের নাম / ৩৪ বার
আপডেট সময় রবিবার, ১১ জুলাই, ২০২১

জয়পুরহাট টুয়েন্টি ফোর ডটকম:

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নির্দেশে নীতিমালা প্রণয়নের এক মাস পার হলেও দেশের বেশিরভাগ এলাকায় কার্যকর হয়নি ইন্টারনেটের ‘এক দেশ এক রেট’। ইতোমধ্যে অভিযোগ জমা পড়ছে বিটিআরসি ও আইএসপি অ্যাসোসিয়েশনে। তবে ইন্টারনেট অপারেটররা দুষছেন ট্যারিফ প্ল্যানে সংস্কার না হওয়াকে। ইন্টারনেট অপারেটররা বলছেন, বন্ধ করতে হবে অবৈধ প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম।

সারাদেশে সাশ্রয়ী ও দ্রুত গতির ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দেয়ান নির্বাচনী ইশতেহার বাস্তবায়নের লক্ষ্যে এ সরকার তাৎক্ষণিকভাবে এই নীতি বাস্তবায়নের নির্দেশনা দেয়।

তবে এখনও বেশিরভাগ এলাকার গ্রাহকরা নির্ধারিত মূল্যে সেবা পাচ্ছেন না। নিয়ন্ত্রক সংস্থা এবং আইএসপির কাছেও এমন অভিযোগ জমা পড়ছে। আইএসপিএ জানায়, সংশ্লিষ্ট সব ধরনের অপারেটরের ট্যারিফ প্ল্যানে সংস্কার করা হলে এই জটিলতার অবসান ঘটবে।

তবে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসির দাবি, ভ্যালু চেইনের সকল পক্ষের সাথে আলোচনা করেই এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এক দেশ এক রেট বাস্তবায়নে গড়িমসির কোনো সুযোগ নেই বলে উল্লেখ করেন বিটিআরসির ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত রায় মৈত্র।

আইএসপি অভিযোগ করছে, দু’হাজারের বেশি লাইসেন্সবিহীন প্রতিষ্ঠান চলমান আছে। এদের গ্রাহক সংখ্যা ৩০ শতাংশের বেশি। অবৈধ এসব ইন্টারনেট অপারেটদের দৌরাত্ম্যে, সরকারের ‘এক দেশে এক রেট’ কার্যক্রম মুখ থুবড়ে পড়ছে।

অবৈধ অপারেটরদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার পাশাপাশি, ‘এক দেশ এক রেট’ বাস্তবায়নে এবার স্থানীয় প্রশাসনকে মাঠে নামানো হচ্ছে বলেও জানানো হয় তাদের পক্ষ থেকে।

গ্রাহক পর্যায়ে ৫ এমবিপিএসের জন্য ৫শ টাকা। ১০ এমবিপিএস ৮শ এবং ২০ এমবিপিএসর জন্য সর্বোচ্চ ১২শ টাকা নির্ধারণ করে দিয়েছে বিটিআরসি।

সুত্রঃ যমুনা টিভি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিস্তারিত

Theme Created By ThemesDealer.Com