শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:৪৩ অপরাহ্ন

ঈদের আগে দোকান খুলতে চাই যশোরের ব্যবসায়ীরা

রিপোর্টারের নাম / ২৪২ বার
আপডেট সময় রবিবার, ৩ মে, ২০২০

শাহারুল ইসলাম ফারদিন, যশোর প্রতিনিধিঃ  প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে সারাদেশের সাথে যশোরের সকল দোকান পাঠ বন্ধ রয়েছে দীর্ঘ ৪৫ দিন। এ অবস্থায় চরম বিপাকে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা। ব্যবসা বন্ধ থাকায় একদিকে যেমন তারা আয়হীন হয়ে পড়েছেন তেমনি, ব্যাংক ঋণ ছাড়াও কর্মচারিদের বেদন ভাতা দেয়া নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েছেন। এ অবস্থায় অন্তত ঈদের আগে দোকান পাট খুলতে চান ব্যবসায়ীরা। এ জন্য তারা আজ যশোরের জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারক লিপিও দিয়েছেন। তাদের দাবি শর্তসাপেক্ষে হলেও তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলার অনুমতি দেয়া হোক।

 

স্মারকলিপিতে ব্যবসায়ীরা বলেছেন, করেনা ভাইরাসের কারণে গত ৪৫ দিন ধরে সারা দেশের সাথ যশোরের সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এজন্য অর্থনৈতিকভাবে পঙ্গু হয়ে পড়েছেন সব  শ্রেনীর ব্যবসায়ী। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকির মধ্যে পড়েছেন ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের উদ্যোক্তারা।  ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ব্যবসায়ীদের যেমন ঋণের বোঝা বাড়ছে, তেমনি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন ভাতাও অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছে। ব্যবসায়ীরা দাবি জানিয়ে বলেছেন, সরকারি ঘোষিত স্বাস্থ্য বিধি মেনে ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ঈদকে সামনে রেখে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হোক।

 

আজ দুপুরে যশোরের জেলা প্রশাসক বরাবর এই স্মারকলিপি দেয়া হয়। স্মারকলিপি গ্রহণ করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও যশোর চেম্বার অব কমার্সের প্রশাসক মো. রফিকুল হাসান।এ সময় উপস্থিত ছিলেন যশোর চেম্বার অব কমার্সের সাবেক সভাপতি মিজানুর রহমান খান, সহ সভাপতি সাজ্জাদুর রহমান সুজা, সাবেক নির্বাহী সদস্য আবদুল হামিদ চাকলাদার ইদুল, যশোর ছিট কাপড় ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আবু হোসেন প্রমুখ।

 

এদিকে বাম গণতান্ত্রিক জোট ভুক্ত সিপিবি, বাংলাদেশের ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ, বাসদ (মার্কসবাদী), বাসদ ও বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি (মার্কসবাদী) যশোর জেলা সমন্বয় কমিটির নেতৃবৃন্দ ইজিবাইক চালক ও মালিকদের  খাদ্য সহায়তা দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছেন। এক বিবৃতিতে আজ নেতৃবৃন্দ বলেছেন, যশোর শহর ও শহরতলীতে চলাচলকারী হাজার হাজার ইজিবাইক চালক, মালিক প্রায় দেড় মাসের অধিককাল ধরে কর্মহীন হয়ে খাদ্য ও অর্থ সংকটের মধ্য দিয়ে পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। এ পরিস্থিতিতে তাদের খাদ্য সহয়তা প্রয়োজন। আমরা সরকারের সংশ্লিষ্ট মহলকে ইজিবাইক চালক ও মালিকদের তালিকা করে খাদ্য সহয়তা দেওয়ার অনুরোধ করছি। একই সাথে তারা শহরে ইজিবাইক চলাচলের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার, জরিমানা ও সকল প্রকার হয়রানি বন্ধেরও দাবী জানিয়েছেন। বিবৃতি দাতারা হলেন, বাম গণতান্ত্রিক জোট ও ওয়ার্কার্স পার্টি (মার্কসবাদী) যশোর জেলা কমিটির সমন্বয়ক জিল্লুর রহমান ভিটু, সিপিবি যশোর জেলা কমিটির সভাপতি এ্যাড. আবুল হোসেন, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ যশোর জেলা শাখার সম্পাদক তসলিম-উর-রহমান,  বাসদের (মার্কসবাদী) জেলা সমন্বয়ক হাচিনুর রহমান ও বাসদের জেলা সমন্বয়ক শাহজান আলী। #

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিস্তারিত
Theme Created By ThemesDealer.Com
DMCA.com Protection Status